আপনার জীবন সঙ্গীকে খুশি রাখার ১০টি উপায়

0
40

সঙ্গীর প্রশংসা করুনঃ

মানুষ প্রশংসা অনেক বেশি পছন্দ করে তাই যদি সঙ্গীকে অনেক খুশি রাখতে চান তাহলে তার প্রশংসা করুন বিনা দ্বিধায়। হয়তো আপনি দেখানোর জন্য মিথ্যা বলবেন কিন্তু তিনি নিশ্চিতভাবে খুশিই হবেন।

সঙ্গীকে সময় দিনঃ

ভালোবাসা প্রকাশ কিন্তু আপনার অনেক দামী উপহারের মাধ্যমে হবে না। নারী বা পুরুষ উভয়েই সঙ্গীর কাছ থেকে দামী উপহার নয় বরং সময় আশা করে থাকেন। আপনি নিজের টাকা খরচ করে ভালোবাসা প্রকাশ না করে সময় ব্যয় করেই দেখুন না সঙ্গি খুশি হন কিনা।

বিশ্বাস করতে শিখুনঃ

সম্পর্কের জন্য বিশ্বাস খুবই গুরুত্বপূর্ন, আস্থাহীন সম্পর্ক টিকে থাকে না। <!–

–>
সঙ্গীকে বিশ্বাস করুন তার কথার মূল্যায়ন আপনাদের সুন্দর জীবনের স্বার্থেই করা উচিত।

সঙ্গীর পছন্দ অপছন্দের খোঁজ রাখুনঃ

সঙ্গী সবসময়েই আপনার মনোযোগ চান। তিনি চান আপনি তার পছন্দ অপছন্দের ব্যাপারটি লক্ষ্য করুন। কারণ এর মাধ্যমেই তিনি বুঝে নিতে চান আপনি তাকে কতোটা ভালোবাসেন, কতোটা খেয়াল রাখেন। আপনার এই সামান্য কাজেই আপনার সঙ্গী অনেক বেশি খুশি থাকবেন।

পুরনো সমস্যাকে ভুলে যানঃ

পুরনো সমস্যাকে নতুন করে সামনে আনবেন না। অতীতের এই সব কথা সম্পর্কের জটিলতা বাড়ায়। তাই সম্পুর্নভাবেই অতীতের এইসব সমস্যা কে এড়িয়ে যেতে চেষ্ঠা করুন।

রান্না করুনঃ

এই রান্না করার বিষয়টি কিন্তু নারী পুরুষ উভয়ের জন্যই প্রযোজ্য। নারীরা তার সঙ্গীর পছন্দের খাবার রান্না করে খাওয়ালেই আপনার সঙ্গী অনেক বেশি খুশি থাকবেন। এবং পুরুষেরাও এই কাজটি করতে পারেন। তবে পুরুষেরা যদি পছন্দের খাবার নাও রাঁধতে পারেন তারপরও সঙ্গীকে সারপ্রাইজ করতে কিছু রান্না করে সামনে এনে দিলেই সঙ্গিনী অনেক খুশি হয়ে যাবেন।

রোমান্টিক হোনঃ

নারী এবং পুরুষ মুখে প্রকাশ না করলেও রোমান্স পছন্দ দুপক্ষেরই। তাই একটু হলেও রোমান্টিক হওয়ার চেষ্টা করুন। রোমান্টিকতা সঙ্গীকে খুশি করার পাশাপাশি আপনাদের সম্পর্ককেও অনেক বেশি গভীর ও মজবুত করে তুলবে।

হঠাত্‍ করে একটি উপহারঃ

কোনো উপলক্ষ থাকলে তো একে অপরকে উপহার দেয়াই হয়। কিন্তু এর বাইরেও সঙ্গীর কথা মনে করে ছোট্ট কিছু নিয়ে এলেন, তাকে সারপ্রাইজ করে দিলেন, এতেও সঙ্গী অনেক বেশি খুশি হবেন। এর জন্যও অনেক খরচ করার প্রয়োজন নেই। একটি ফুল বা ছোট্ট একটি কার্ডই যথেষ্ট।

মাঝে মাঝে বেড়াতে যানঃ

সময় পেলে সপ্তাহে অন্তত একবার হলেও সঙ্গীকে নিয়ে কোন জায়গা হতে বেড়িয়ে আসুন। এটা সম্পর্কের সুতোকে শক্ত রাখতে ম্যাজিকের মত কাজ করে।

একে অপরের কাজে সহযোগিতাঃ

একে অপরের কাজে সহযোগিতা করার বিষয়টি সম্পর্ক অনেক বেশি মজবুত করে তোলে, সেই সাথে সাহায্য পেয়ে সঙ্গীও অনেক বেশি খুশি থাকেন। যদি কাজে সাহায্য না করতে পারেন মানসিকভাবে সঙ্গীকে সাপোর্ট করেও সাহায্য করতে পারেন। এতেও সঙ্গী খুশিই হবেন।

IT24BD

Source

Facebook Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here